তরুণ আলোকচিত্রীদের হাতেখড়ি দিলো "হ্যালো ফটোগ্রাফার্স ২" - হাতেখড়ি

তরুণ আলোকচিত্রীদের হাতেখড়ি দিলো “হ্যালো ফটোগ্রাফার্স ২”

আমানুর রহমান, নারায়ণগঞ্জ:
শিশু কিশোর ও তারুণ্যের ফটোগ্রাফিক সংগঠন SunsGraphy ২০১৭ সাল থেকে যাত্রা শুরু করে ইতিমধ্যে দেশের অন্যতম আলোকচিত্রী প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।

 বছরের নির্ধারিত দুটি সাইনিং ইভেন্ট “বর্ষসেরা আলোকচিত্রী পুরস্কার ” ও “হ্যালো ফটোগ্রাফার্স” এর আসর থেকে শত শত আলোকচিত্রীর উন্মেষ হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় “হ্যালো ফটোগ্রাফার্স ২ ” আলোকচিত্র উৎসব ২০১৯ এর আয়োজনটি রাজধানীর দৃক গ্যালারীতে অনুষ্ঠিত হয়েছে একদিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানে মিলিত হয়েছে শত শত তরুণ উদীয়মান আলোকচিত্রীর গল্প।  আলোকচিত্রে নিজেদের অবস্থান জানাতে তাঁরা তুলেছেন নানারকম ব্যাতিক্রমী দৃশ্য।  সেসব ছবিতে উঠে এসেছে প্রকৃতি এবং জীবনের নানান অনুষঙ্গের চিত্র। সান্সগ্রাফি আয়োজনে এই প্রদর্শনীতে ১১১ টি আলোকচিত্র স্থান পেয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকার স্টাফ ফটোজার্নালিস্ট সাবিনা ইয়াসমিন, বিশেষ অতিথি হিসেবে মিডিয়াখ্যাত অপূর্ব অভি, অতিথি হিসেবে রাকিব মাহমুদ আবির ও সান্সগ্রাফির প্রতিষ্ঠাতা সাকিবুল ইসলাম লিসান উপস্থিত ছিলেন।

“হ্যালো ফটোগ্রাফার্স ২” নিয়ে অভিব্যক্তি প্রকাশের সময় সান্সগ্রাফি প্রতিষ্ঠাতা ও অনুষ্ঠানের আয়োজক সাকিবুল ইসলাম লিসান বলেন, “আমাদের কার্যক্রমের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে ক্যামেরার পিছনের মানুষ,যারা একটি গল্প সবার সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করছে; আমরা সেসব ফটো শিল্পীদের সবার সামনে তুলে ধরতে চাই।”

প্রদর্শনীতে মোবাইল ও ক্যামেরা ক্যাটাগরিতে সর্বমোট সেরা দশজন অধিয়মান আলোকচিত্র শিল্পীদেরকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। দশজন আলোকচিত্রীর নাম যথাক্রমেঃ মোহাম্মদ আশরাফুল বারী (অবাঞ্চিত), মোরশেদ বিন ইসলাম(Winter Morning), এস.এম ইশরাকুল রহমান (Beauty of Nature), খালিদ আসাফ প্রত্যয় (কে কবে শুনেছিল তোমাদের গল্প), সাইফ হাসান দীপ্ত  (আলোর লুকোচুরি), জ্যাক বরুয়া (জেলেদের জীবন সংগ্রামের বেচে থাকার গল্প), ফাহমিদা হক (যুদ্ধের ময়দানে অগ্নিঝরা আকাশ), মিনহাজ মাহমুদ (The Fairy Land), আমানুর রহমান (পাগলের চিত্তে পরিচ্ছন্ন দেশের অঙ্গীকার), যতি রাণী দাস (আমাদের দেশে ভালো ছাত্র বলতে A+ কেই বুঝি)।

এছাড়াও আয়োজনে সকল অংশগ্রহণকারী আলোকচিত্রী শিল্পীদের আলোকচিত্র ফ্রেম, নাম খচিত ক্রেস্ট এবং সনদপত্র দ্বারা সম্মানিত করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *