খেলেন না প্রতিবন্ধীরা - হাতেখড়ি

খেলেন না প্রতিবন্ধীরা

মোশারফ হোসাইন :

কালো রঙের বোর্ডে সাদা রঙে লেখা “শুধুমাত্র প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্মুক্ত খেলার মাঠ। রাজধানী ঢাকা শের-ই বাংলা নগর এলাকার এই মাঠটিতে উন্মুক্ত খেলার মাঠ নামে সাইনবোর্ড চোখে পড়লেও চোখে পড়েনা উন্মুক্ত খেলার জায়গা ।

প্রকৃতপক্ষে পাঠটি ময়লার স্তুব ও জঙ্গলে ভরপুর হয়ে গেছে। উন্মুক্ত মাঠ নামক সাইরবোর্ডে ব্যবস্থাপনায় জাতীয় প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের নাম থাকলেও উন্মুক্ত করতে পারেনি প্রতিবন্ধীদের খেলার মাঠটি। প্রতিবন্ধীদের খেলাধুলা ও শরীর র্চচার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১১ সালে একটি উন্মুক্ত খেলার মাঠ নির্মাণ করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন । আর সেই অনুযায়ী জাতীয় সংসদ ভবনের পশ্চিম পাশের জায়গাতে মাঠ উন্মুক্ত করার কথা থাকলেও বিগত বছর গুলোতেও উন্মুক্ত হয়নি এ মাঠ ।

শের-ই বাংলা নগর এলাকার জাতীয় সংসদ ভবনের পশ্চিম পাশে মিরপুর সড়কের পাশে প্রতিবন্ধীদের উন্মুক্ত খেলার মাঠের জন্য বরাদ্দকৃত ৪.১৬ একর জায়গা জাতীয় প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন বরাবর হস্তান্তর করা হলে কয়েকবার মাঠের জন্য কাজ শুরু হয় তবে অজানা কারণে বন্ধ হয়ে যায় মাঠ নির্মাণের কাজ । সরেজমিনে দেখা যায় বর্তমানের মাঠের বদলে উন্মুক্ত হয়ে আছে জঙ্গল ও ময়লা । কথা হয়, বেশ কয়েকজন প্রতিবন্ধী শিশুর অভিভাবকের সাথে তারা বলেন, মাঠটি উন্মুক্ত না করায় খেলাধুলার মতো কোন পরিবেশ পাচ্ছেনা তাদের প্রতিবন্ধী শিশুরা । স্থানীয়রা সরকারের কাছে জোর দাবী জানান মাঠটি উন্মুক্ত করার ব্যপারে । তারা বলেন, মাঠটি উন্মুক্ত না করায় খেলাধুলা ও শরীরর্চ্চা মতো বিভিন্ন সুবিধারথেকে বঞ্চিত হচ্ছে প্রতিবন্ধী শিশু কিশোররা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *