ক্রাইস্টচার্চ থেকে হ্যামিল্টনে বাংলাদেশ - হাতেখড়ি

ক্রাইস্টচার্চ থেকে হ্যামিল্টনে বাংলাদেশ

হাবিবুর রহমান,ঢাকাঃ

বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফর মানেই ব্যর্থতার সরস গল্প। টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি- যে ফরমেটই হোক, ব্যর্থতা শতভাগ।তবে আগের ৪ সফরের গল্পটা এরই মধ্যে অতীত। মুশফিক-তামিম-মাহমুদ উল্লাহদের সামনে এখন টেস্ট পরীক্ষা।

বরাবরই টেস্ট বাংলাদেশের জন্য কঠিন এক পরীক্ষা। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সেটি আরও বেশি কঠিন।

নিউজিল্যান্ডের ঝড়ো বাতাস আর সবুজাভ বাউন্সি পিচে বাংলাদেশিদের জন্য সাদা পোশাকের ক্রিকেট খেলাটা যুদ্ধের চেয়েও বেশি কঠিন। আতঙ্কের বিষয় হলো এবারের পরীক্ষাটা একটু বেশি দীর্ঘ। নিউজিল্যান্ডে আগের ৪ সফরে মোট ৭টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। ৩ বার ছিল দুই টেস্টের সিরিজ। একবার এক টেস্টের। সেখানে এবার ৩ টেস্টের সিরিজ। চ্যালেঞ্জটাও তাই বড়। প্রশ্ন হলো এ চ্যালেঞ্জটা জিততে পারবে বাংলাদেশ?

আজ সোমবার সকালেই ক্রাইস্টচার্চ থেকে বিমানে চেপে অকল্যান্ড। সেখান থেকে গাড়িতে করে হ্যামিল্টন। কে জানে, হয়তো হ্যামিল্টনে পৌঁছে এতোক্ষণে অনুশীলনেও নেমে পড়েছে বাংলাদেশ দল।

ভ্রমণক্লান্তির কথা ভুলে অনুশীলনে নেমে পড়াটাই স্বাভাবিক। কারণ, ওয়ানডের পর ক্রাইস্টচার্চেই সাদা পোশাকের ক্রিকেট অনুশীলন শুরু করে দিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু সেই অনুশীলনটা ঠিকঠাক হতে দেয়নি বৃষ্টি। একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচটিতে ব্যাটসম্যানরা ব্যাট করতে পারলেও বৃষ্টির কারণে বোলাররা বল করতে পেরেছেন মাত্র ১২ ওভার ।

হ্যামিল্টনে প্রথম টেস্ট শুরু হবে বৃহস্পতিবার। মানে আজ ছাড়াও মাঝে আরো দুটি দিন আছে, হ্যামিল্টনের আবহাওয়া, পরিবেশ, উইকেটের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার।

বাংলাদেশ দল কি পারবে আবহাওয়া, পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে এবারের টেস্ট দ্বৈরথের গল্পটা আলাদাভাবে লিখতে? যে গল্পটা শুধুই ব্যর্থতার হবে না, থাকবে সাফল্যের গুণগানও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *