কুড়িগ্রামে দশ বছরের শিশু আল-আমিনকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন - হাতেখড়ি

কুড়িগ্রামে দশ বছরের শিশু আল-আমিনকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

খালিদ আহম্মেদ রাজাঃ

আল-আমিন সে এবার ২য় শ্রেণিতে পড়ে, তার প্রধান সমস্যা ছিলো মাঝে মাঝে শ্বাসকষ্ট, সর্দি, কাশি লেগেই থাকত। পারিবারিক অসচ্ছলতার কারণে আল-আমিনকে দেখানো হয় নাই ভাল ডাক্টার।

বিগত ১৫-২০ দিন আগে হটাৎ মাথা ঘুড়ে পড়ে গেলে চিকিৎসার জন্য আল-আমিনকে  নেওয়া হয় রংপুরে। রংপুরের কর্তব্যরত ডাক্টার পরিক্ষা- নিরিক্ষার মাধ্যমে আল-আমিনের হার্ট ফুটোর বিষয়টি তার পরিবারকে নিশ্চিত করে।

সর্বশেষ ০৯ এপ্রিল, ২০১৯ সিনিয়র কনসালট্যান্ট কার্ডিয়াক সার্জন ড. মোঃ শরিফুজ্জামানের তথ্যবধানে ন্যাশনাল হার্ড ফাউন্ডেশন এন্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটে তার সকল পরিক্ষা-নিরিক্ষা শেষে আল-আমিনের জন্মগত হার্ট ফুটো সাথে বাম পার্শ্বের ভালভটিতে ক্ষত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে ডাক্টার। এবং যতদ্রুত সম্ভব  হার্টের সার্জারি বিষয়ে নির্দেশ প্রদান করেন। যার আনুমানিক খরচ ৫ লক্ষ টাকা।

যা তার দিনমজুর পিতা হামিদুর রহমানের পক্ষে বহন করা একেবারেই অসম্ভব। তাই আপনাদের আন্তরিক সহযোগীতাই পারে শিশু আল-আমিনকে বাঁচাতে পারে। পারে তার পরিবারের মুখে হাসি ফুটাতে। যে যেভাবে পারেন এগিয়ে আসুন! আল-আমিন বাঁচতে চায়। অচেনা পৃথিবীকে জানতে চায়।

হ্যাঁ, বলছিলাম কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ঘোগাদহ ইউনিয়নের মরাটারি গ্রামের দিনমজুর পিতা হামিদুলের পুত্র আল-আমিনের কথা।

আল-আমিন এর পরিবার সম্পর্কে জানতে কল করতে পারেন:  মো. রফিকুল ইসলাম, সদস্য, ০২ নং ওয়ার্ড, ঘোগাদহ ইউপি।  মোবাইলঃ 01725339476 মো. শাহ আলম মিয়া চেয়ারম্যান, ঘোগাদহ ইউপি।  মোবাইলঃ 01717913229

সাহায্য পাঠানোর মাধ্যম:  01784078414 (বিকাশ পার্সোনাল) আল-আমিনের বাবা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *